আজ || মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম :
 


মণিরামপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত একজনের মৃত্যু

যশোরের মণিরামপুরের খেদাপাড়ায় ট্রাক ও ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর আহত শংকর দাস চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।
তিনি রাজগঞ্জের খেদাপাড়া গ্রামের ঋষি পল্লীর গনেশ দাসের ছেলে।
রোববার সকাল ১০টার দিকে ঢাকা স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
মৃত্যুর বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য রাজু আহম্মেদ নিশ্চিত করেন।
এদিকে রোববার রাত সাড়ে ৭টার দিকে শংকর দাসের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পৌঁছায়।
ওই রাতেই স্থানীয় শ্মশানে শংকর দাসের শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন করা হয়।
জানাযায়, গত শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিকাল তিনটার দিকে রাজগঞ্জ-পুলেরহাট সড়কের খেদাপাড়া বাজারের গাঙ্গুলিয়া ফাজিল মাদরাসার সামনে ট্রাক ও ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় খেদাপাড়ার ঋষি পল্লীর গনেশ দাসের ছেলে শংকর দাস (৪০), একই পাড়ার সুভাষ দাসের ছেলে বিষ্ণু দাস (২৭), মুকুন্দ দাসের ছেলে
সংকর দাস (২৫), মহিন্দ্র দাসের স্ত্রী হরিদাসী ও ছেলে মহাদেব দাস (২৫) এবং গাঙ্গুলিয়া গ্রামের বাইক চালক আসাদুজ্জামান আসাদ (৩২) আহত হয়।
আহতদেরকে যশোর ২শ’ ৫০শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
আহতদের মধ্যে শংকর দাসের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় প্রথমে ঢাকার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।
পরে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রোববার সকাল ১০টার দিকে শংকর দাসের মৃত্যু হয়।


Top