আজ || বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম :
 


ঢাকায় কাজে যেতে গিয়ে লাশ হলো তালার ছেলে

সাতক্ষীরা তালার ছেলে গার্মেন্টসের কাজে যোগদান করতে ঢাকায় যাচ্ছিলেন মোঃ আমানুল্লাহ ফকির (২০)। কিন্তু রাস্তায় পিকআপের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। আমানুল্লাহ তালা উপজেলার জেঠুযা গ্রামের মৃত মাজেদ ফকিরের ছেলে।

এ সময় আহত হন পিকআপ চালক মোস্তাফিজুর রহমান (৩০)। তিনি উপজেলার কৃষ্ণকাটী গ্রামের দিদারুল মোড়লের ছেলে। যশোরের একটি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছে ঐ চালক।

নিহতের বড়ভাই মিঠু ফকির জানান, তার ছোট ভাই আমানুল্লাহ ফকির বেশ কয়েক বছর ধরে ঢাকায় গার্মেন্টেসে চাকরি করছেন। করোনা ভাইরাসের কারণে তিনি বাড়িতে এসে হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।

রবিবার সকালে তার চাকরিতে যোগদান কথা ছিল। কিন্তু বাস বন্ধ থাকায় শুক্রবার রাতে তালার কৃষ্ণকাটী এলাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি পানবহনকারী পিকআপে উঠে তিনি ঢাকায় যাচ্ছিলেন।

রাত সাড়ে ১০টার দিক যশোরের সুতিঘাটা এলাকায় পিকআপ উল্টে তার নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান আমানুল্লাহ। এ সময় পিকআপ চালক আহত হন।

জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম মফিদুল হক লিটু জানান শনিবার বিকালে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।


Top